মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে

এক নজরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের তথ্য কণিকা

 

 

প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীঃ

  • বাংলাদেশে মোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা        = ৬৩ হাজার ৬০১

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়                                                = ৩৭,৬৭২

বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়            =  ৬৩৪

নতুন জাতীয়রণকৃত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়                       =  ২৫,২৪০

পরীক্ষণ বিদ্যালয়                                                           =  ৫৫

 

  • মোট সরকারি শিক্ষকের সংখ্যা                                  = ৩ লক্ষ ২২ হাজার ৭৬৬
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোট ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা                  = ২ কোটি ১৯ লক্ষ ৩২ হাজার ৬৩৮
  • বর্তমান সরকারের সময় শিক্ষক নিয়োগের সংখ্যা             = ১ লক্ষ ৩০ হাজার ১০০
  • প্যানেলভুক্ত শিক্ষকের সংখ্যা                                      = ৪২ হাজার ৬১১ জন
  • প্যানেল হতে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকের সংখ্যা (আগস্ট '১৬)       = ৩২ হাজার ৯৬১ জন
  • অবশিষ্ট প্যানেলভুক্ত শিক্ষকের সংখ্যা                            =   ৭ হাজার জন
  • প্রাক-প্রাথমিক শাখার শিক্ষকের সৃজিত পদ সংখ্যা              = ৩৭ হাজার ৬৭২
  • প্রাক-প্রাথমিক শাখার নিয়োগকৃত শিক্ষকের সংখ্যা             = ৩৪ হাজার ৮৯৫

 

বই বিতরণঃ

  • ২০১৮ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই বিতরণ                    = ১০ কোটি ৮৭ লক্ষ ১৯ হাজার ৯৯৭টি
  • ২০১৮ সালে প্রাক-প্রাথমিক বই বিতরণ                          = ৩২ লক্ষ ৮৮ হাজার ৫৩টি
  • ২০১৮সালে প্রাক-প্রাথমিক অনুশীলন খাতা বিতরণ            = ৩২ লক্ষ ৮৮ হাজার ৫৩টি
  • ২০১৮ সালে শিক্ষার্থীদের বই বিতরণের বরাদ্দকৃত অর্থ         = ২১৯ কোটি ৯৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা
  • ২০১৮ সালে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের বই বিতরণে ব্যয়কৃত অর্থ  = ১৯০ কোটি ২০ লক্ষ ৬১ হাজার ১৮২   টাকা
  • ২০১৮ সালে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের বই বিতরণের ব্যয়কৃত অর্থ = ২৩ কোটি ৫ লক্ষ ১০ হাজার ১৫০ টাকা

 

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি সংক্রান্তঃ

 

  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গমনোপযোগী শিশুদের বিদ্যালয়ে নীট ভর্তির হার= ৯৭.৯৪%
  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ঝরে পড়ার হার
    • ২০০৫ সালে                      = ৪৭.২%
    • ২০১৮ সালে                      = ১৯.৪%
  • শিক্ষাচক্রের সমাপনীর হার                = ৮১.৬%

 

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উপবৃত্তিঃ

 

  • উপবৃত্তি উপকারভোগী শিক্ষার্থী সংখ্যা = ১ কোটি ৩০ লক্ষ

 

 

 

প্রাথমিক বিদ্যালয় নির্মাণ সংক্রান্তঃ

  • প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি-৩ (পিইডিপি-৩)আওতায় জুন ২০১৬ পর্যন্ত নির্মাণকৃত শ্রেণিকক্ষ = ২৫ হাজার ৪০৪
    • নির্মাণাধীন রয়েছে               = ৬ হাজার ৪০৭
    • কার্যাদেশ প্রদানের অপেক্ষায়    = ৫ হাজার ৩৫৯
  • পিইডিপি-৩ এর আওতায় ছাত্র-ছাত্রীদের সুপেয় পানীয়জলের ব্যবহারের জন্য ৩৯ হাজার ৩০০ নলকূপ স্থাপন করা হবে। তন্মধ্যে জুন ২০১৬ পর্যন্ত ২৭ হাজার ২৯২টি নলকূপ স্থাপন করা হয়েছে এবং চলতি অর্থবছরে ১২ হাজার নলকূপ স্থাপন করা হবে।
  • ২০১৭ সাল পর্যন্ত ওয়াসব্লক নির্মাণ করা হবে ২৩ হাজার ৫০০টি, তন্মধ্যে জুন ২০১৬ পর্যন্ত ১৭ হাজার ৪৪৩টি নির্মাণ করা হয়েছে।
  • বিদ্যালয়বিহীন এলাকায় ১৫০০ প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্পের আওতায় নির্মিত প্রাথমিক বিদ্যালয় = ১ হাজার ১৮০টি এবং নির্মাণাধীন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা = ২৫৩টি
  • পিইডিপি-৩ এর আওতায় ২৬ হাজার ৬২০টি টয়লেট মেরামত করা হয়েছে। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে আরও ১ হাজার ২৯৫টি টয়লেট মেরামত করা হবে।
  • পিইডিপি-৩ এর আওতায় ৭৫ হাজার ৮৫১টি বিদ্যালয় রুটিন মেরামত করা হয়েছে। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে আরও ২৬ হাজার ৬৬৬টি বিদ্যালয় রুটিন মেরামত করা হবে।
  • পিইডিপি-৩ এর আওতায় ৩ হাজার ২৪৬টি বিদ্যালয়ে বড় ধরনের মেরামত করা হয়েছে। ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে ১ হাজার ৩১৮টি বিদ্যালয়ে বড় ধরনের মেরামত করা হবে।

 

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষাঃ

 

  • ২০০৯ সাল হতে ৫ম শ্রেণির প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু হয়। ২০১৭ সালে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৮ লক্ষ ৩৯ হাজার ২৩৮ জন। পাশের হার = ৯৮.৫২%

 

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণি চালুকরণঃ

 

  • শিক্ষানীতি ২০১০ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সারাদেশে পর্যায়ক্রমে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণি চালু করা হচ্ছে। ২০১৩ সালে ৪৯১টি, ২০১৪ সালে ১৯২টি,  ২০১৫ সালে ৭৭টি এবং ২০১৬ সালে ৪টি, সর্বমোট ৭৬৪টি বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণি চালু করা হয়েছে। বর্তমানে চাহিদার আলোকে আরও বিদ্যালয় ৬ষ্ঠ শ্রেণি চালুর বিষয়টি চলমান রয়েছে।

 

রিচিং আউট অব স্কুল চিলড্রেন (ROSC) কার্যক্রমঃ

  • ROSC প্রথম পর্যায় প্রকল্পের আওতায় ৯০টি উপজেলায় আনন্দ স্কুলের সংখ্যা     = ১৯ হাজার ২৬৮টি
  • মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা                                                                    = ৬ লক্ষ ২৪ হাজার ১০২ জন
  • সমাপনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ                                                                   = ১ লক্ষ ৩৭ হাজার ৩২৭ জন

 

  • ROSC ২য় পর্যায় প্রকল্পের আওতায় ৫২টি জেলার ১২৩টি উপজেলায় আনন্দ স্কুলের সংখ্যা

                                                                                                        = ১১ হাজার ১৬২

  • মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা                                                                   = ৩ লক্ষ ১০ হাজার ৯৮৭ জন

 

 

 

শিশু কল্যাণ ট্রাস্ট বিদ্যালয়ঃ

 

  • শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের আওতায় শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা                   = ১৫০টি
  • শিশু কল্যাণ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর সংখ্যা                                          = ২৮ হাজার
  • শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের আওতায় শিশু কল্যাণ ট্রাস্টের আওতায় কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র   = ৯টি
  • কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে শিক্ষার্থীর সংখ্যা                                                    = ৪৯৮ জন

 

শিক্ষক প্রশিক্ষণঃ

 

  • পিইডিপি-৩ এর আওতায় ৫৮ হাজার ৭৫২ জন প্রধান শিক্ষককে Leadership বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।
  • স্কুল হেল্প কার্যক্রম বিষয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষক/শিক্ষিকার সংখ্যা = ৭৯ হাজার ৫৪০
  • ICT in Education এ ৩৪ হাজার ৯১২ জন শিক্ষক এবং ৪০০ জন কর্মকর্তা।

 

 

 

 

আইসিটি বিষয়কঃ

 

  • রূপকল্প ২০২১ অর্জনের লক্ষ্য প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থাপনার সাথে সম্পৃক্ত ১ হাজার ১৩৯টি মাঠ পর্যায়ের দপ্তরে ইন্টারনেট সংযোগসহ কম্পিউটার প্রদান করা হয়েছে।
  • ৫৫টি পিটিআইতে আধুনিক ICT Lab স্থাপন করা হয়েছে এবং নতুন স্থাপিত ১১টি পিটিআইতে ICT Lab স্থাপনের লক্ষ্যে ক্রয় কার্যক্রম চলমান আছে ।
  • ৮ হাজার ৯২৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাল্টিমিডিয়া শ্রেণীকক্ষ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ল্যাপটপ মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর, সাউন্ড সিস্টেম ও ৫৪৩২ টি বিদ্যালয়ে মডেম সরবরাহ করা হয়েছে।
  • ৭টি বিভাগীয় উপপরিচালক এবং ৫৩টি ডিপিইও কার্যালয়ে LAN স্থাপন করা হয়েছে।

 

স্কুল ফিডিং কার্যক্রমঃ

 

  • দারিদ্রপীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পের আওতায় ৯৩টি উপজেলার ১৫৭০০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩০ লক্ষ ৭৫৮ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে ৭৫ গ্রাম ওজন বিশিষ্ট প্যাকেট বিস্কুট সরবরাহ করা হচ্ছে।

ছবি


সংযুক্তি



Share with :

Facebook Twitter